রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৩:১২ পূর্বাহ্ন

রুশ বিপ্লবের রুপকার লেনিনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে বাসদের আলোচনা সভা

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : সোমবার, ২৯ জানুয়ারী, ২০২৪
  • ৮৯ 🪪

মহান রুশ বিপ্লবের রুপকার ও বিশ্বে^র মেহনতি মানুষের বন্ধু মহামতি লেনিনের মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষ বাংলাদেশের সমাজতান্ত্রিক দল-বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্দ্যোগে আজ ২৯ জানুয়রি ২০২৪ সন্ধ্যা ৬ টায় ২ নং রেলগেটস্থ বাসদ কার্যালয়ে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়।

বাসদের জেলা সমন্বয়ক নিখিল দাসের সভাপতিত্বে সভায় আলোচনা করেন বাসদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ, বাসদের জেলার সদস্যসচিব কমরেড আবু নাঈম খান বিপ্লব, সেলিম মাহমুদ, কবি অভিজিৎ রায়, সিপিবি নেতা বিমল কান্তি দাস।

কমরেড বজলুর রশীদ ফিরোজ বলেন, মহামতি লেলিন ১৯১৭ সালের ৭ নভেম্বর রাশিয়ায় সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবের মাধ্যমে শ্রমিক শ্রেণীর রাষ্ট্র নির্মাণ করেন। এই প্রথম শ্রমের মর্যাদা প্রতিষ্ঠিত হলো। পূজিবাদী ব্যবস্থা অর্থাৎ ব্যক্তিমালিকানা ব্যবস্থা অবসান ঘটানোর লক্ষ্যে সামাজিক মালিকানাভিত্তিক সমাজতান্ত্রিক সমাজ প্রতিষ্ঠা করতে লেলিন পরিচালনা করেন এক দীর্ঘ সংগ্রাম। এই দীর্ঘ সংগ্রামের যাত্রাপথে তিনি যেমন মতাদর্শিক বিভ্রান্তির বিরুদ্ধে তীব্র লড়াই করেন, আবার একটি সঠিক বিপ্লবী দল গড়ে তোলার জন্য মার্কসবাদী দৃষ্টিভঙ্গীকেও বিস্তৃত করেন। কমরেড লেলিন যেমন বুদ্ধিবৃত্তিক চর্চা করেছেন আবার ্এই তাত্তিক ভিত্তিকে রাশিয়ার মাটিতে সঠিকভাবে প্রয়োগ ঘটিয়েছেন। ইউরোপের সরচেয়ে পিছিয়ে থাকা দেশ রাশিয়ায় রুশ সমাজতান্ত্রিক বিপ্লবের মাধ্যমে ও পরবর্তীতে মহামতি স্ট্যালিনের সমাজতান্ত্রিক বিনির্মাণের মধ্যে দিয়ে উন্নত দেশে রুপান্তরিত হয়। লেলিন সেদিন দেখিয়েছিলেন সা¤্রাজ্যবাদ আছে মানেই যুদ্ধ থাকবে, তা আজও সত্য বলে প্রমাণিত। আজ বিশ^ব্যাপী সংঘাত সংঘর্ষ চলছে। এর থেকে পৃথিবীকে মুক্ত করতে হলে সাম্রাজ্যবাদ ও পূজিঁবাদের পতন ঘটাতে হবে।

কমরেড ফিরোজ আরো বলেন, আজকের দিনে পূজিঁবাদী ব্যবস্থা ফ্যাসীবাদকে ছাড়া টিকবেনা। আমদেরে দেশেও চরম আওয়মী ফ্যাসীবাদী দু:শাসন চলছে। গত ৭ জানুয়ারি একতরফা নির্বাচনের নামে প্রহসন করেছে জনগনের সাথে। দ্রব্যমূল্যের উর্ধ্বগতিসহ শ্রমজীবি মানুষ দিশেহারা। চরম দমনপীড়ন চলছে বিরোধী দলের উপর। লেনিনের শিক্ষাকে পাথেয় করে এই পূজিঁবাদী দুঃশাসনের বিরুদ্ধে সংগ্রাম জোরদার করতে হবে। আজ বিশ^ব্যাপী সা¤্রাজ্যবাদী দেশগুলো যে যুদ্ধের দামামা বানিয়ে চলেছে গোটা দুনিয়ার মানবতাকে বিপন্ন করছে, এর থেকে পরিত্রান পেতে হলে আমাদের যেতে হবে লেনিনের কাছে। তাই এই কথা বলা যায় যে মৃত্যুর একশত বছর পড়েও বিশ^ মানবতার মুক্তি তথা শ্রমিক শ্রেণীর সংগ্রাম লেনিন, লেনিন আজও প্রাসঙ্গিক

এ বিভাগের আরো সংবাদ
©2020 All rights reserved Daily Narayanganj
Design by: SHAMIR IT
themesba-lates1749691102