বৃহস্পতিবার, ২০ জুন ২০২৪, ০১:০৩ অপরাহ্ন

নারায়ণগঞ্জে বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৬ নভেম্বর, ২০২৩
  • ১৪৩ 🪪

নারায়ণগঞ্জে বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমাবেশ
শ্রমিক হত্যার বিচার, নিহতদের আজীবন আয়ের সমান ক্ষতিপূরণ, ঘোষিত মজুরি বাতিল করে সম্মানজনক মজুরি ঘোষণা করতে হবে ফ্যাসিবাদী আওয়ামী সরকারের পদত্যাগ, সংসদ ভেঙ্গে নির্দলীয় নিরপেক্ষ তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে।

রাসেল, ইমরান, আঞ্জুয়ারা, জামাল উদ্দিন হত্যার বিচার, নিহত-আহতদের আজীবন আয়ের সমান ক্ষতিপূরণ, সরকার ঘোষিত নি¤œতম মজুরি কাঠামো বাতিল করে বর্তমান বাজার দর বিবেচনায় সম্মানজনক মজুরি ঘোষণা, ফ্যাসিবাদী আওয়ামী সরকারের পদত্যাগ, সংসদ ভেঙ্গে নির্দলীয় নিরপেক্ষ তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন দেয়ার দাবিে আজ বিকাল ৪ টায় বাম গণতান্ত্রিক জোট নারায়ণগঞ্জ জেলা শাখার উদ্যোগে কেন্দ্র ঘোষিত দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসাবে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। বাম গণতান্ত্রিক জোট নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক হাফিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে সমাবেশগুলোতে বক্তব্য দেন কমিউনিস্ট পার্টির নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্ত্তী, বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা কমিটির সদস্যসচিব আবু নাঈম খান বিপ্লব, বাসদ জেলা কমিটির নেতা সেলিম মাহমুদ, বেলায়েত হোসেন, কমিউনিস্ট পার্টির জেলার নেতা বিমল কান্তি দাস, মোঃ শাহীন।
নেতৃবৃন্দ বলেন, ‘শ্রমিক বান্ধব সরকার’ মজুরি ঘোষণার প্রশ্নে মালিকদের পক্ষেই অবস্থান নিয়েছে। মজুরি ঘোষণায় তালবাহনা করে দেরি করা, অন্যায়ভাবে ১০ হাজার ৪০০ টাকা মজুরি প্রস্তাব করে মালিকেরা শ্রমিকদের রাস্তায় নামতে উসকানি দিয়েছে। শ্রমিকরা রাস্তায় নামায় সরকার তাদেরকে গুলি করে হত্যা করে শ্রমিক নয় মালিকেরই পক্ষ নিয়েছে। আন্দোলনের এক পর্যায়ে মজুরি সাড়ে ১২ হাজার টাকা মজুরি ঘোষণা করা হয়, যেটি শ্রমিকদের প্রত্যাশিত নয়। বাজার দর, উচ্চ দ্রব্যমূল্য, মূল্যস্ফীতি বিবেচনায় শ্রমিকরা ২৩ হাজার টাকা মজুরি দাবি করেছিল। এই অযৌক্তিক সাড়ে ১২ হাজার টাকা মজুরি ঘোষণা শ্রমিকদের আরো ক্ষুব্ধ করেছে। শ্রমিকদের শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে পুলিশ গুলি চালিয়েছে। রাসেল, ইমরান, আঞ্জুয়ারা, জালালসহ ৪ জন শ্রমিককে হত্যা করেছে। যেসব ভাংচুরের কথা শ্রমিকরা করেছে বলে বলা হচ্ছে, সেটিও সঠিক নয়। স্থানীয় সরকারি দলের গুন্ডা, জুট ব্যবসায়ী ও মালিকদের লাঠিয়াল বাহিনী এই সব ভাংচুর অগ্নিসংযোগ ঘটিয়ে শ্রমিকদের উপর চালিয়ে দিয়েছে। বাস্তবে মজুরি পুনঃনির্ধারণের দাবিকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার জন্য পরিকল্পিতভাবে হত্যাকাÐ ঘটানো ও শ্রমিকদের কারখানা ভাঙচুরের গল্প তৈরি করা হয়েছে।
নেতৃবৃন্দ স্বচ্ছ তদন্তের মাধ্যমে গুলি করে শ্রমিক হত্যার বিচার দাবি করে বলেন, নিহত চারজন শ্রমিকের পরিবারকে আজীবন আয়ের সমান ক্ষতিপূরণ প্রদান করতে হবে। গাজীপুরে ২২টি মামলায় ১৬ হাজার অজ্ঞাত শ্রমিককে আসামী করা কিংবা সাভার আশুলিয়ায় ৪০টি মামলায় হাজার হাজার অজ্ঞাত আসামী করা ভয় দেখিয়ে শ্রমিকদের ন্যায্য মজুরির দাবি থেকে সরানোর মালিকদের চক্রান্তের অংশ। মালিকরা নতুন মজুরি বাস্তবায়নের সময় প্রতিবাদী শ্রমিকদের চাকুরিচ্যুত করবে এবং কম বেতনে নতুন শ্রমিক নিয়োগ দেবে। সেই সময় শ্রমিকদের প্রতিবাদের কন্ঠকে রুদ্ধ করতে এই মামলাগুলি ব্যবহার করা হবে। অতীত অভিজ্ঞতা আমাদের সেই শিক্ষা দেয়। নেতৃবৃন্দ, অবিলম্বে দমন-পিড়ন বন্ধ, শ্রমিক হত্যার জন্য দায়ীদের বিচার এবং ক্ষতিগ্রস্থদের যথাযথ ক্ষতিপূরণ প্রদানের আহŸান জানান। নেতৃবৃন্দ শ্রমিকদের উপর দায়েরকৃত হয়রানি মূলক মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানান।
নেতৃবৃন্দ বলেন, অনির্বাচিত আওয়ামী সরকারের ফ্যাসিবাদী দুঃশাসনে জনগণের জীবনে চরম বিপর্যয় নেমে এসেছে। মানুষ এই ফ্যাসিবাদী সরকারের শাসন থেকে মুক্তি চায়। ২০১৪ সালে ভোটারবিহীন নির্বাচনের মাধ্যমে এবং ২০১৮ সালে গভীর রাতে ভোট ডাকাতি করে সরকার ক্ষমতায় এসে জনগণের বিরুদ্ধে অপশাসন চালিয়ে যাচ্ছে। সরকার আবারও ক্ষমতায় আসার জন্য আরপিও সংশোধন করে ইসির ক্ষমতা খর্ব করেছে। নির্বাচন কমিশনসহ সকল সাংবিধানিক প্রতিষ্ঠানগুলো ধ্বংস করা হয়েছে। সরকারের আজ্ঞাবহ প্রধান নির্বাচন কমিশনার আজ এক তরফাভাবে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার কথা রয়েছে। এ তফসিল জনগণ মানবে না।
নেতৃবৃন্দ বলেন, দলীয় সরকারের অধীনে যে সুষ্ঠু নির্বাচন সম্ভব নয় তা ইতিমধ্যে প্রমাণিত হয়েছে। ফলে বর্তমান আওয়ামী সরকারকে অবিলম্বে পদত্যাগ করতে হবে, সংসদ ভেঙ্গে দিয়ে নির্দলীয় তদারকি সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। নির্বাচনে কালো টাকা, ধর্মের ব্যবহার বন্ধ করে সংখ্যানুপাতিক নির্বাচন ব্যবস্থা চালু করতে হবে।

জেলা বাম জোটের আগামীকাল ৬ টা থেকে ২ টা দেশব্যাপী অর্ধদিবস হরতাল সফল করার আহবান।

বাম গণতান্ত্রিক জোটের সমন্বয়ক হাফিজুল ইসলাম, বাসদ নারায়ণগঞ্জ জেলা আহŸায়ক নিখিল দাস, সদস্যসচিব আবু নাঈম খান বিপ্লব, কমিউনিস্ট পার্টির নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক শিবনাথ চক্রবর্ত্তী এক বিবৃতিতে বলেন, প্রধান নির্বাচন কমিশনার আজ সন্ধ্যায় জনমত সম্পূর্ণ উপেক্ষা করে নির্বাচনী তফসিল ঘোষণা করেছে। বাম গণতান্ত্রিক জোট একতরফা নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার প্রতিবাদে দেশব্যাপী আগামীকাল ৬ টা থেকে ২ টা অর্ধদিবস হরতালের আহŸান করেছে। ফ্যাসিবাদী আওয়ামী সরকারের আবার একতরফা নির্বাচনের মাধ্যমে ক্ষমতা যাওয়ার জন্য এই প্রহসনের নির্বাচন বন্ধের দাবিতে নারায়ণগঞ্জে বাম জোট নেতা-কর্মীরা জনগণকে সাথে নিয়ে সর্বাত্মক হরতাল পালন করবে। নেতৃবৃন্দ নারায়ণগঞ্জে সর্বাত্মক হরতাল পালনের জন্য নারায়ণগঞ্জবাসীর আহŸান জানান।

এ বিভাগের আরো সংবাদ
©2020 All rights reserved Daily Narayanganj
Design by: SHAMIR IT
themesba-lates1749691102