শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১৩ অপরাহ্ন

নারায়ণগঞ্জে শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদের মিছিল-সমাবেশ

ডেইলি নারায়ণগঞ্জ
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর, ২০২৩
  • ১০২ 🪪

জাতীয় ত্রি-পক্ষীয় পরামর্শ পরিষদকে পাশকাটিয়ে শ্রম আইনের সংশোধন অনুমোদনের চেষ্টা বন্ধ কর ‘অত্যাবশ্যক পরিষেবা বিল ২০২৩’ প্রত্যাহার কর

ত্রি-পক্ষীয় পরামর্শ পরিষদকে পাশকাটিয়ে শ্রম আইনের সংশোধন অনুমোদনের চেষ্টা বন্ধ, অত্যাবশ্যক পরিষেবা বিল’২৩ প্রত্যাহার এবং আইন করে জাতীয় ন্যূনতম মজুরি ঘোষণাসহ স্কপের ৯ দফা বাস্তবায়নের দাবিতে গতকাল বিকাল ৪ টায় দেশব্যাপী কর্মসূচির অংশ হিসাবে নারায়ণগঞ্জ প্রেস ক্লাবের সামনে সমাবেশ ও শহরে বিক্ষোভ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।

শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ-স্কপ নারায়ণগঞ্জ জেলার সমন্বয়ক হাফিজুল ইসলামের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জাতীয় শ্রমিক লীগ নারায়ণগঞ্জ জেলার ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট হুমায়ুন কবীর, সমাজতান্ত্রিক শ্রমিক ফ্রন্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি আবু নাঈম খান বিপ্লব, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি আব্দুল হাই শরীফ, জাতীয় শ্রমিক ফেডারেশন নারায়ণগঞ্জ জেলার সভাপতি হাফিজুর রহমান, ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্রের জেলার সাধারণ সম্পাদক বিমল কান্তি দাস, গার্মেন্টস শ্রমিক ফ্রন্ট জেলার সভাপতি সেলিম মাহমুদ, বাংলাদেশ লেবার ফেডারেশন নারায়ণগঞ্জ জেলার সাধারণ সম্পাদক আবু সুফিয়ান, নৌ পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক আনিসুর রহমান মাস্টার।

নেতৃবৃন্দ বলেন, শ্রমিক কর্মচারী ঐক্য পরিষদ-স্কপ বাংলাদেশের ৭ কোটি ৩৪ লাখ মানুষের প্রতিনিধিত্ব করে। শ্রমিকদের প্রতিনিধি হিসাবে তাদের যেকোনো অর্জিত অধিকার সংকোচনের যেকোনো প্রচেষ্টা রুখে দিতে সর্বোচ্চ চেষ্টা চালানো স্কপের নৈতিক দায়িত্ব। শ্রম আইন, বিধিমালা বা শ্রম ও শিল্প সম্পর্ক বিষয়ে যেকোনো নীতি প্রণয়নের প্রধান কাঠামো ত্রি-পক্ষীয় পরামর্শ পরিষদ। আই.এল.ও কনভেনশন এবং রীতি অনুযায়ী শ্রম আইন প্রণয়ন বা সংশোধনে মন্ত্রীসভায় অনুমোদনের আগে ত্রি-পক্ষীয় পরামর্শ পরিষদ (টিসিসি) এর সভায় আলোচনা এবং অনুমোদনের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কিন্তু আমরা বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ থেকে জানতে পেরেছি যে গত ৯ অক্টোবর মন্ত্রীসভায় শ্রম আইনের সংশোধনী অনুমোদন করা হয়েছে কিন্ত এখন পর্যন্ত এই প্রস্তাবিত সংশোধনী ত্রি-পক্ষীয় পরামর্শ পরিষদ (টিসিসি) এর সভায় আলোচিত বা অনুমোদিত হয়নি। এর ফলে শ্রম আইনসহ শ্রম সংক্রান্ত নীতিগত বিষয় অনুমোদন করার আইনি প্রক্রিয়াকে লঙ্ঘন করার একটি খারাপ উদাহরণ তৈরি করা হলো। অপরদিকে শ্রম আইন সংশোধনের দীর্ঘ প্রক্রিয়ায় শ্রমিক সংগঠন সমুহের প্রস্তাব, মালিকপক্ষ ও সরকারের পক্ষ থেকে দেয়া প্রস্তাবগুলো নিয়ে যে পর্যালোচনা করা হয়েছিল এবং তার ভিত্তিতে শ্রম আইন সংশোধনীর যে উদ্যোগ নেয়া হয়েছিল তাকে সম্পূর্ণ উপেক্ষা করা হলো যা শ্রমিকদের মধ্যে আস্থাহীনতা বাড়াবে। টিসিসি-কে পাশকাটিয়ে শ্রম আইনের সংশোধনী অনুমোদনের চেষ্টা স্কপসহ দেশের সকল শ্রমজীবীদের বিক্ষুদ্ধ করেছে এবং স্কপ প্রস্তাবিত সংশোধনী পুনর্বিবেচনার জন্য টিসিসি-তে ফেরত পাঠানোর দাবি জানাচ্ছে।

এ বিভাগের আরো সংবাদ
©2020 All rights reserved Daily Narayanganj
Design by: SHAMIR IT
themesba-lates1749691102